What the Jamaat-Shibir doing protesting war crimes verdict


This slideshow requires JavaScript.

There have been 1971-like atrocities carried out by the Jamaat-Shibir, killings-rape-vandalism-looting-arson have been a daily dose they’re presenting the people of Bangladesh and across the world. Not just following the verdict, delivered on Thursday, the opposition parties mainly the Jamaat have been demonstrating against the govt on different issues since June 2009 — six months after the Awami League-led came to power. The main opposition in parliament, BNP’s agenda has been “going to power” while Jamaat-Shibir has been protesting the war crimes trial that began in March 2010.

As the next general elections loom and verdict in three cases handed down, the demonstrations of the opposition parties have turned violent, when they’re demanding that the govt resigns and the international crimes trial proceedings are scrapped, therefore, releasing the top leaders of Jamaat who deliberately campaigned for Pakistan and joined them against Bangladeshis in genocide, rape, arson and looting.

The state is targeted in the attacks carried out by the Jamaat-Shibir fanatics as we see the attackers are swooping on police, chopping or beating them indiscriminately to create panic among the force; vandalising and setting fire to govt establishments and properties to compel the govt stop the trials. Notably, the incidents are taking place in the districts where Jamaatis are prominent — Chittagong, Satkhira, Rajshahi, Pabna, Sylhet, Bagerhat, Dinajpur and Thakurgaon. They use mosques and the Imams as dens and promoters. There are around 3,00,000 mosques across the country.

Meanwhile, when the police have started firing on the violent protesters, the fundamentalists have also started changing their style, they began taking women and children with them in the demonstrations. Most people joining those violent protests, led mainly by few Shibir operatives, are ordinary Muslims, uneducated and unprivileged.

Some people including the BNP chief have been protesting the police’s shooting by branding the attitude as genocide against the opposition, but most others support it because they don’t want to tolerate fundamentalist Jamaat-Shibir in politics, business and religious activities. No Muslim, honest and reasonable person can support Jamaat-Shibir, which is the defeated force of 1971 Liberation War.

Can those condemning police action say what should police do when they’re attacked?

And first and last, how dare they launch violent demonstrations against a tribunal while there’s provision for appeal? How dare they challenge the state they’re living in? How dare they dream of lifetime impunity despite being war criminals? HANG THEM ALL…!!!

You Jamaat-Shibir supporters, who are you fighting for — war criminals, fraud Islamists, corrupt and rapists???

Listen to the leaked conversations of Sayedee and Salahuddin Quader Chowdhury (Saka Chow)

Sayedee administering a milad
Sayedee opposing milad

About women, Sayedee is male chauvinist. Listen to his conversation with his wifeIn his sermons, Sayedee is a very popular person for speaking on the touchy issues and individuals like “women without veils” and “rape”, and Sheikh Hasina and the AL.

A popular sermon is translated here: Men’s attraction towards women is usual. Islam has asked to keep her veiled so that this attraction doesn’t turn a man high. This is why Allah has covered all the best foods. Is banana a tasty food? Haven’t Allah covered it? Isn’t pine-apple packed? Isn’t it same with lichi…? If someone sits outside the Baitul Mokarram with uncovered (naked) Sabri kola (a banana variety), Lengra aam (a popular mango variety), jackfruit etc, will anyone buy those? No! None will buy those, rather flies will take the advantage. (নারীর প্রতি পুরুষের আকর্ষণ স্বাভাবিক। এই আকর্ষণ সৃষ্টি হয়ে যেন তার প্রতি কোনো কুনজর না করতে পারে সেজন্য ইসলাম বলেছে তাকে পর্দায় রাখার জন্য। এই জন্য সব ভালো ভালো খাবার আল্লাহ পর্দা করে দিয়েছেন। কলা ভালো খাবার না মন্দ খাবার? কলাটা আল্লাহ প্যাকেট করে দিয়েছেন না? আনারসটা প্যাকেট করে দিয়েছেন না? লিচুটা প্যাকেট করেছেন না। সবরি কলা, ল্যাংড়া আম, কাঁঠাল সব ছিলাইয়া যদি বায়তুল মোকারমের সামনে নিয়া বসে, কেউ কিনবে? কেনবো তা নাই, এর উপর পড়বে মাছি।)

Farhad Mazhar, a writer, poet and friend of Sayedee and Jamaat, has the similar view about women, as he resembles them with foods and luxuries. Read his poem:

কেনাবেচা চলছে তোমাকে নিয়ে
যেন তুমি শাকসব্জি
আলুপটল
খাসীর মাংস….
তোমার নাম হতে পারত মোগলাই পরোটা
তোমার নাম হতে পারত জাপানী হোন্ডা
তোমার নাম হতে পারত ডানহিল সিগারেট
তোমার নাম হতে পারত পুষি বেড়াল
অর্ধসভ্য মানুষ তোমার নাম রেখেছে অর্ধাঙ্গিনী
এই সব জেনে তোমার সামনে আমি
নত মুখে এসে দাঁড়িয়েছি নারী
আমি পুরুষ
আমাকে ক্ষমা কর।
…..’
কর্তৃত্ব গ্রহণ কর, নারী‘- ফরহাদ মজহার 

This Farhad was a communist once upon a time, then turned an Awami dalal and now turned a Jamaat advisor, therefore, writing on the Jamaati newspapers favouring the party’s leaders being tried while saying that “people” are protesting

There is an allegation of tax evasion against him. He was also sued for embezzling Jakat Funds. The cases are underway.

On August 19, 2010, the National Board of Revenue filed the case against Sayedee with the senior judge’s court of Dhaka on charge of evading Tk 56.45 lakh (5.64 million) as income tax from 2005-06 to 2009-10 fiscal year and giving “false information to misguide the NBR”.   

The Islamic Foundation on May 24, 2010 sued Sayedee and former state minister for religion Mosharraf Hossain Shahjahan for embezzling Tk 12,760,000 in zakat funds. The case says the duo embezzled the funds of 2004-2005 financial year by allocating the moneys to organisations of their choice. Former chairman of the Masjid Council for Community, Maulana Abul Kalam Azad and former finance and account’s director Md Lutful Haq were the two others to be charged.

Sayedee has been used and abused by the Jamaat to fortify its popularity and acceptance among the ordinary Muslims. But can the religious sermons prove that Sayedee is a pious man?

During his visit to the UK in 2006, Sayedee at a programme defended attacking the US and the UK mentioning “the UK deserves to be bombed”! The Sun on July 15, 2006 had ran a report headlined: “Ban this beast and Kill Brits hate Cleric let into UK”. The report referred Sayedee as a BEAST.

A day after he was sentenced to death and the Jamaat-Shibir violence underway, some fanatics in several districts Friday spread that Sayedee’s face was seen on the moon and that the Allah’s aides angels were with Sayedee — to portray the Jamaat leader as a very close person to Allah — a mockery everyone finds other than the blind Jamaat supporters and some beneficiaries.

It’s the joke of the century, no doubt!

But Jamaat-Shibir was successful as they could bring out thousands of Muslims to the streets in the dawn for several days and provoked attacking on the law enforcers.

Attack on Hindus has been one of the worst parts of the ongoing atrocities as their houses-temples are vandalised and looted while women are raped and the male are tortured, even killed. Attack on the minority communities have been seen in more than seven districts. But only a few newspapers have reported the extent of persecution on the women, no TV channel has been seen running any detail story highlighting their plights.

Many journalists across the country have also been attacked and threatened as their newspapers and channels are pro-liberation and telecast the Shahbagh protest, and therefore, running reports that goes against Jamaat-Shibir-BNP atrocities.

These Jamaat-Shibir-Islamist party supporters, backed by BNP, have been able to establish a reign of terror. But it’s also surprising that they claim themselves to be demonstrating to save Islam from the hands of atheist Shahbagh protesters and the autocratic govt!

Rumours are there that the Pakistan intelligence ISI is financing Jamaat against the govt while accusing Indian RAW for patronising the Shahbagh movement and the AL govt, which the BNP-Jamaat always blame to be pro-India. But it’s quite evident that there’s Pakistani link with the ongoing protests by Jamaat-Shibir and Islamist parties as they’re not showing any restrain despite different efforts to calm them. The activities of Facebook page of “বাঁশেরকেল্লা – Basherkella”, a mouthpiece of the agitating Jamaat-Shibir men who also support the BNP but can’t stand anything of the govt and the people’s movement, gives an impression that they’re funded by someone influential. The plan and propaganda are hatched here.  

However, frustration mounts among people since the govt is yet to declare Jamaat-Shibir an outlawed organisation.

The pro-liberation people are organising themselves to resist the Jamaat-Shibir hooligans in many areas across the country.

Shahbagh Gonojagoron Moncho declared a Mass Rally for today at Jatrabari intersection at 3pm — the fifth in a row outside Shahbagh intersection. Freedom-fighters, families of martyrs, students-teachers and protesters will address the Mass Rally while thousands will converge at the point. The stage will be erected on a truck.

The number of participants at Shahbagh moncho has decreased as the pace of movement has shrunk down because of loose programmes apparently to give the govt time to take a decisive decision.

The protesters are highly active on the Facebook, Twitter and blogs where they’re publishing opinions and analyses, photos and videos to support their stance against the fundamentalists. Hundreds of Facebook pages & groups are actively campaigning in this venture.

But where’s the country heading? Civil war between pro- and anti-liberation elements or an army coup?

People are divided over an immediate solution: the pro-liberation quarter say continuous shooting can stop the radical Islamists while the apolitical-middleclass and the opposition are opposing any killing and trying to compel the govt sit with them for a compromise over the trial of identified war criminals and the next polls.

But what’s the solution to avert similar atrocities that may occur by the successors of the current leadership of Jamaat in future? And, how to unchain the foreign intelligence units?

Decisions, decisions…

Meanwhile, TV scrolls say sporadic clashes and subversive activities are taking place in at least 5 districts since 5:30am Tuesday. My father called me minutes ago to stay relief to know that I was fine while I’m not sure what’s gonna happen as I need to attend office at 11am.

The whole country is panicked while the attackers and the govt agencies and pro-govt supporters are not.

We need to end the violence, punish the culprits, and work to ensure a peaceful and constructive society free from razakars.

 

For more in-depth reports, please see the previous stories=>>

8 comments

  1. ++++ বাঁশেরকেল্লা ( http://www.facebook.com/newbasherkella ) থেকে রেলে নাশকতার পরিকল্পনা! +++++

    জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ফাঁসির রায়ের সঙ্গে সঙ্গেই ফেসবুকে জামায়াত-শিবির কর্তৃক পরিচালিত পেইজ বাঁশের কেল্লায় ঘোষণা দেওয়া হয় রেললাইন দ্রুত উপড়ে ফেলানোসহ ঢাকা বিচ্ছিন্ন করার। এ ঘোষণার পরই শুরু হয় দেশের বিভিন্ন জায়গায় রেলে জামায়াত শিবিরের তাণ্ডব।

    বাঁশের কেল্লার ঘোষণার পর ২৮ ফেব্রুয়ারি রায়ের পর থেকে ৫ মার্চ পর্যন্ত রেলে চলে নাশকতা। শিবির তাদের ছক অনুযায়ী বাংলাদেশ রেলওয়েতে অর্ধশতাধিকের বেশি জায়গায় নাশকতা চালায়। মূলত বাঁশেরকেল্লা থেকেই এ নাশকতার পরিকল্পনা হয়। শিগগিরই এ সাইটে আরও বড় নাশকতার ঘোষণা দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র বাংলানিউজকে এ তথ্য জানায়।

    বাংলানিউজের অনুসন্ধানে জানা গেছে, শিবিরের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে প্রতিটি জেলার শিবির নেতাদের জানানো হয়েছে বাঁশেরকেল্লার মাধ্যমে বিভিন্ন কর্মসূচি জানানো হবে। এ সাইটে যেসব নির্দেশনা দেওয়া হয় সে অনুযায়ী কাজ করতেও বলা হয়েছে।বাঁশেরকেল্লায় আসা সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বর্তমানে দেশের বিভিন্ন জায়গায় কাজ করছে জামায়াত-শিবিরের নেতা কর্মীরা।

    গত ২৮ ফেব্রুয়ারি সাঈদীর রায় ঘোষণার পরই ১০টি ঘোষণা দেয়া হয় বাঁশেরকেল্লায়। প্রথমে ঘোষণা দেয়-‘‘এ মূহুর্তেই সকল রেল লাইন উপড়ে ফেলতে হবে।’’

    এদিন সন্ধ্যায় বাঁশেরকেল্লায় ঘোষণা দেওয়া হয় রেললাইন উপড়ে ফেলার পাশাপাশি সন্ধ্যা থেকেই ট্রেনের ইঞ্জিন, বগিতে আগুন ও ট্রেনের বিভিন্নস্থানে আগুন দিতে হবে। এরপর রোববার হরতালের আগের রাতে রাজশাহীতে আন্তঃনগর ট্রেনে হামলা হয়। ওই রাতে সিল্কসিটি আন্তঃনগর সার্ভিসের পাঁচটি কোচ পুড়িয়ে দেয় জাময়াত-শিবির সন্ত্রাসীরা।

    Like

  2. জামায়াতী ভন্ডামীসমগ্রঃ

    সংখ্যালঘু নির্যাতনের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর জনাব মকবুল আহমাদ নিম্নোক্ত বিবৃতি দিয়েছেন http://jamaat-e-islami.org/newsdetails.php?nid=MTQzNg==

    মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আজ জাতীয় সংসদে গণহত্যা সম্পর্কে আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দিতে গিয়ে যে মিথ্যাচার করেছেন তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ http://jamaat-e-islami.org/details.php?artid=MTA2Mjc=

    কয়েকটি পত্রিকায় চট্টগ্রামে ১০ আলেমকে হত্যার পরিকল্পনা সংক্রান্ত্ম ভিত্তিহীন মিথ্যা খবরের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ http://jamaat-e-islami.org/newsdetails.php?nid=MTQyMg==

    দেশব্যাপী গণহত্যার প্রতিবাদে ও আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তির দাবীতে আগামীকাল দেশব্যাপী গণবিক্ষোভ কর্মসূচী ঘোষণা http://jamaat-e-islami.org/details.php?artid=MTA2MjQ=

    Like

  3. দেইল্লা রাজাকার শুধু একাত্তরে খুন,ধর্ষন, গণহত্যা করেই ক্ষান্ত হয়নি বরং তার বিচার চলাকালে নিজের নাম নিয়েও জালিয়াতি করেছে, বয়স নিয়ে করেছে, নির্বাচনে অর্থের হিসেব নিয়ে করেছে। ট্রাইবুনালে বার বার প্রমাণ করতে চেয়েছে যে একাত্তরের দেলু রাজাকার আর কাঠগড়ার সাঈদী এক না। আসুন তার এই সকল জালিয়াতির সকল তথ্য একটু জেনে নেই প্রমাণ সহ-

    http://www.somewhereinblog.net/blog/ghaghuBabublog/29791329

    Like

  4. জামায়াতে ইসলামী ধর্মের নামে দেশের মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রামের জামেয়া আহমদীয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ জালালউদ্দিন আল কাদেরী।

    তিনি বলেছেন, যুদ্ধাপরাধের মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী বিভিন্ন সময়ে ওয়াজ মাহফিলে ইসলামের ভুল ব্যাখা দিয়েছেন।

    চট্টগ্রামের ১০ আলেমকে হত্যার ষড়যন্ত্র ফাঁস হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার সংবাদ সম্মেলন করে এসব বিষয় তুলে ধরেন মাওলানা জালালউদ্দিন। ওই তালিকায় অধ্যক্ষ জালালউদ্দিনের নাম রয়েছে প্রথমে।

    আলেমদের হত্যা ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামে মানববন্ধনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয় এই সংবাদ সম্মেলন থেকে।

    গত সোমবার চট্টগ্রামের মুরাদপুর থেকে এই ‘হিটলিস্ট’সহ ইসলামী ছাত্রশিবিরের আট কর্মীকে আটক করে পুলিশ।

    চট্টগ্রামের বিবিরহাটে জামেয়া আহমদীয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অধ্যক্ষ জালালউদ্দিন বলেন, “সাঈদী বিভিন্ন ওয়াজ মাহফিলের ইসলামের ভুল ব্যাখা দিয়ে দিয়েছেন। চট্টগ্রামের প্যারেড গ্রাউন্ডেও যখন তিনি বয়ান দিয়েছেন তিনি মহান আল্লাহ ও রসুলের (সা.) নামে আপত্তিকর ও মানহানিকর বক্তব্য দিয়েছেন। আমরা আলেম-ওলামারা বিভিন্ন সময় ইসলামের স্বার্থে এসবের প্রতিবাদও করেছি।”

    মাওলানা জালালউদ্দিন বলেন, ধর্মের ভুল ব্যাখ্যা নিয়ে বিভিন্ন সময়ে তারা সাঈদীর সঙ্গে কথা বলারও চেষ্টা করেছেন। কিন্তু ওই জামায়াত নেতা কখনো কথা বলতে রাজি হননি।

    শিবিরের ওই ‘হিটলিস্টের’ অন্য নয় আলেম হলেন- উপাধ্যক্ষ ছগির আহমেদ ওসমানী, শায়খুল হাদীস ওবায়দুল হক নঈমী, মোহাদ্দেস আশরাফুজ্জামান কাদেরী, ফকিহ ওসিউর রহমান, মাওলানা আবুল কাশেম নুরী, ফকিহ আবদুল ওয়াজেদ, মুফতি ইউনূস, মাওলানা তাওহিদ ও পাহাড়তলীর নেছারিয়া আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ জয়নাল আবেদিন জুবায়ের।

    যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে আন্দোলনরত গণজাগরণ মঞ্চের কর্মী ব্লগার আহমেদ রাজীব হায়দার হত্যাকাণ্ডে জড়িত অভিযোগে ছয়জনকে গ্রেপ্তারের পর আট ব্লগারকে হত্যার আরেক পরিকল্পনা উদ্ঘাটিত হয়, যার পেছনেও শিবিরের এক নেতা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

    সংবাদ সম্মেলনে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরে জালালউদ্দিন বলেন, “আমরা কোনো রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত না। ইসলামের সেবাই আমাদের কাজ। জামায়াতকে আমরা ইসলামী সংগঠন মনে করি না। ইসলামের নামে তারা মানুষকে ভুল বুঝাচ্ছে, বিভ্রান্ত করছে।”

    স্বাধীনতাবিরোধী এ রাজনৈতিক দলকে নিষিদ্ধ করা না করা সরকারের ব্যাপার মন্তব্য করে অধ্যক্ষ বলেন, আইন তার নিজের গতিতে চলবে। সাঈদীর বিচার আইন অনুযায়ী হবে।

    “আইনের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। আইন নিজের হাতে তুলে নেয়ার কথা ইসলামেও নেই”, বলেন মাওলানা জালালউদ্দিন।

    তিনি জানান, সাঈদীর রায়ের পর সারাদেশে জামায়াত-শিবিরের তাণ্ডব এবং চট্টগ্রামের ১০ আলেমকে হত্যার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকালে নগরীর মুরাদনগর থেকে বিশ্বরোড হয়ে বারেক বিল্ডিং পর্যন্ত মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হবে।

    সূত্র বিডি নিউজঃ http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article598885.bdnews

    Like

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s