স্বাধীনতার ৪০ বছর পূর্তির দিনে ও তার পরদিন সীমান্তে বিএসফের হাতে নিহত ৪ জনের মৃত্যুতে বাংলাদেশ ১ দিন পরে লিখিত প্রতিবাদ পাঠায় আর ভারত তার পরদিন দুঃখ প্রকাশ করে। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো সাথে তারা সাফাই দেয় এই বলে যে “আত্মরক্ষার খাতিরে তারা গুলি করে”।

আর আমাদের সরকার তার পর থেকে মুখে কুলুপ এঁটেছে, কেননা র‍্যাবের ক্রসফায়ারের বৈধতা দিতে সাহারা, দিপু মনি ও স্বয়ং র‍্যাব বাহিনী এই যুক্তিটাই দেখিয়ে আসছে সবাইকে।

যেমন কর্ম তেমন ফল–কথাটা বুঝি দুঃখজনকভাবে মিলে গেল এখানে। দুঃখ পাই এ ভেবে যে ভারত সরকার এত বড় বড় কথা বলে, প্রশংসা করেও কেন এভাবে নির্বিচারে মানুষ মারে? এরকম হত্যার উদাহরন তো যুদ্ধকালীন সময়েও দেখা যায়না।

আর সবচেয়ে বড় কষ্ট হয় যখন সরকার জোর গলায় প্রতিবাদ করতে পারেনা আর করলেও কিছুক্ষন পর চুপ হয়ে যায়। এ যুগে যখন একটা দেশে বড় কিছু হলে সারা বিশ্ব জেনে যায় এবং প্রতিক্রিয়া দেখায়, সেখানে আমাদের সরকার সেই সুযোগটা নিচ্ছেনা।

কেন?

Advertisements